পাকিস্তানে বেড়েছে গাধার সংখ্যা


প্রকাশিত:
১৫ জুন ২০২২ ১৫:০৬

আপডেট:
২ জুলাই ২০২২ ১৫:০৯

ইমরান খানের প্রায় চার বছরের শাসনামলে পাকিস্তানে গাধার সংখ্যা বেড়েছে অন্তত চার লাখ। দেশটিতে গাধা রয়েছে ৫৭ লাখের মতো। এর ফলে বিশ্বের তৃতীয় সর্বোচ্চ গাধার মালিক এখন পাকিস্তানিরা।

পাকিস্তানের অর্থনৈতিক জরিপ ২০২০-২১ অনুসারে, ২০০১-০২ সাল থেকে দেশটিতে একমাত্র গাধার সংখ্যাই প্রতি বছর প্রায় এক লাখ করে বেড়েছে। তবে উট, ঘোড়া এবং খচ্চরের মতো অন্য প্রাণীর সংখ্যা গত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে প্রায় একই রয়েছে।

এর আগে পিএমএলএন এবং পিপিপি’র পাঁচ বছরের মেয়াদে গাধার সংখ্যা চার লাখ বেড়েছিল। প্রেসিডেন্ট মোশাররফের সময় ছয় লাখ গাধা বাড়তে যেখানে এক দশক সময় লেগেছিল, সেখানে ১৯৯৯ সালে নওয়াজ শরিফের আমলে একই সংখ্যক গাধা বাড়তে সময় লেগেছিল মাত্র দুই বছর।

পাকিস্তানে ২০০৮-০৯ সালে গাধা ছিল মোট ৪৫ লাখ, এক দশকের ব্যবধানে ২০১৮-১৯ সালে তার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৫৪ লাখে। জরিপ বলছে, ওই সময়ে দেশটিতে ঘোড়া, উট ও খচ্চরের সংখ্যা যথাক্রমে চার লাখ, ১১ লাখ ও দুই লাখে স্থবির ছিল।

শুধু গাধার সংখ্যা নয়, এটি রপ্তানি করে পাকিস্তানের আয়ও বাড়ছে ধীরে ধীরে। চীনে পাকিস্তানি গাধার প্রচুর চাহিদা রয়েছে। ঐতিহ্যবাহী চীনা ওষুধ তৈরিতে গাধার চামড়া ব্যবহৃত হয় সেখানে।



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top