শাড়ি পরে ইতালির রাস্তায় বাঙালি যুবক


প্রকাশিত:
৩১ অক্টোবর ২০২১ ১৪:১২

আপডেট:
২৯ নভেম্বর ২০২১ ১২:৩৯

নারী-পুরুষের আচরণ কেমন হবে তা সমাজ ব্যবস্থাই ঠিক করে দেয়। জন্মের পর থেকেই সেভাবে বড় হই আমরা। নারীর জন্য গোলাপি, পুরুষের জন্য নীল রঙ। নারী কাঁদবে, পুরুষ কাঁদতে পারবেন না। কারণ চোখের জল দুর্বলতার পরিচায়ক।

পুরো পৃথিবী কাঁধের ওপর ভেঙে পড়লেও চোখের জল ফেলতে পারবে না পুরুষ। নারী-পুরুষ কী পরবে তাও প্রতিটি সমাজে ঠিক করে দেয়। তবে সাম্প্রতিক সময়ে কেউ কেউ সমাজের বানানো এই কাঁচের দেওয়াল ভাঙার চেষ্টা করছেন। তাদের মধ্যে একজন পুষ্পক সেন।

পুষ্পক ইতালির ফ্লোরেন্সে ফ্যাশন মার্কেটিং এবং কমিউনিকেশনস নিয়ে পড়াশোনা করছেন । ২৬ বছর বয়সী এ বাঙালি যুবক পড়াশোনার সূত্রে ইতালিতেই রয়েছেন। সম্প্রতি তাকে মিলানের রাস্তায় দেখা গেছে কালো রঙের শাড়িতে। সঙ্গে পরেছেন হাই নেকটি শার্টের ওপরে ব্লেজার। ট্রিম করা দাড়ি। চোখে হালফিলের রোদ চশমা। কপালে লাল বড় টিপ। এক হাতে ছাতা এবং অন্য হাতে ধরা একটি ব্যাগ।

এবারই প্রথম নয়, পুষ্পককে এর আগেও বহুবার বাহারি রঙ ও ডিজাইনের শাড়িতে দেখা গেছে। হাইহিল পরে তাকে নাচতে দেখা গেছে। যদিও কাজটা যে সহজ নয় তাও জানিয়েছেন। চোখ সাজিয়েছেন নানা রঙে, গয়না পরেছেন। ফ্যাশনের বিষয়ে দারুণ আগ্রহ তার। তাই তিনি এক্সপেরিমেন্ট করতে ভালোবাসেন।

দ্যবংমুন্ডা নামে ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট রয়েছে পুষ্পকের। সেই অ্যাকাউন্টেই এ ছবি পোস্ট করেছেন তিনি।

পুষ্পক জানান, মিলানের রাস্তায় শাড়ি পরে ছবি তোলাটাই তার একমাত্র উদ্দেশ্য ছিল না। শাড়ি পরার মধ্য দিয়ে বাঙালি সংস্কৃতিতে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে দেওয়াও তার একটা লক্ষ্য।

 



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top