শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার দাবিকে পুরনো: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


প্রকাশিত:
১৮ নভেম্বর ২০২১ ১৭:২২

আপডেট:
২৯ নভেম্বর ২০২১ ১১:০৭

শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার দাবিকে পুরনো বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বর্তমানে তেলের ও গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধির সঙ্গে এ দাবির নতুন কোনো সম্পৃক্ততা নেই বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁও মহিলা কলেজে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তেলের মূল্যবৃদ্ধির সঙ্গে হাফ ভাড়ার কোনো সম্পৃক্ততা নেই, এই দাবি তাদের পুরনো। যা টাস্কফোর্সের মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়ন করা হবে।

গণপরিবহনের অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিষয়ে তিনি বলেন, গণপরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের বিষয়ে আমরা মনিটরিং করছি। পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের সঙ্গে নিয়ে বিআরটিএ বৈঠক করে নতুন বাস ভাড়া নির্ধারণ করেছে। কোনো জটিলতা থাকার কথা নয়। এরপরেও কেউ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সম্প্রতি জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির কারণে গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে। তবে যাত্রীদের অভিযোগ সরকার নির্ধারিত ভাড়ার চেয়েও বেশি নিচ্ছে বাসগুলো। এছাড়াও শিক্ষার্থীদেরও হাফ ভাড়ার প্রথা মানতে চাইছে না বাস মালিকরা। এসব ঘটনায় রাজধানীর মিরপুর, বনানী, রামপুরা ও নীলক্ষেত এলাকায় যাত্রী, বাসচালক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে কয়েকদিন ধরেই ঝামেলা চলছে।

এর আগে গণপরিবহনে ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। বাস ভাড়া বাড়িয়ে দূরপাল্লায় প্রতি কিলোমিটারে ১ টাকা ৮০ পয়সা, মহানগরে ২ টাকা ১৫ পয়সা এবং মিনিবাসে ২ টাকা ৫ পয়সা করা হয়েছে। এর মাধ্যমে দূরপাল্লায় প্রতি কিলোমিটারে ভাড়া ২৬ শতাংশ বা ৩৮ পয়সা এবং মহানগরে ২৬ দশমিক ৫ শতাংশ বা ৪৫ পয়সা ভাড়া বাড়ানো হয়। তবে সিএনজিচালিত বাসের জন্য বাড়তি ভাড়া প্রযোজ্য নয়। এছাড়া সর্বনিম্ন বাস ভাড়া ১০ টাকা, মিনিবাসে ৮ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top