স্থান গুলশানের বেঙ্গল গ্যালারি

রনি আহম্মেদের প্রদর্শনী চলবে ১৪ জুন পর্যন্ত


প্রকাশিত:
২ জুন ২০২১ ১৮:১৯

আপডেট:
২০ জুন ২০২১ ১১:৫৪

এ প্রদর্শনী শুরু হয় প্রথম রমজান। এতোদিন ছিল ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে দেখা। এখন  সবার জন্য শরীরীভাবে উন্মুক্ত হলো এ প্রদর্শনী।রনি আহম্মেদের প্রদর্শনী চলবে ১৪ জুন পর্যন্ত।

রনি আহম্মেদ একাধারে কবি, গল্পকার ও চিত্রশিল্পী। তার ভাষায়, “আমার ভাষা মনকে কেন্দ্র করে নয়, বরং আত্মাকে কেন্দ্র করেই তৈরি হয়।”

বেঙ্গল গ্যালারি কর্তৃপক্ষ জানায়, ১৪ জুন পর্যন্ত ‘নূর-ই-মোহাম্মদ’ উন্মুক্ত থাকবে। তবে একই সময়ে ২০ জন দর্শনার্থীদের সীমিত থাকবে প্রদর্শনী।

প্রদর্শনীতে অবস্থানকালে মাস্ক পরে থাকতে হবে এবং যথাযথ দূরত্ব মানতে হবে বলেও জানানো হয়েছে।নূর-ই মোহাম্মদ— নাম শুনেই কিছুটা ধারণা পাওয়া যায় রনি আহম্মেদের আধ্যাত্মিক জগৎ সম্পর্কে। এই নূর স্বয়ং মহান আল্লাহ, রাসুল মোহাম্মদ (সা.) এর মাধ্যমে মানুষ যার সন্ধান পেতে পারে। বলাবাহুল্য, রনি আহম্মেদ ব্যক্তিজীবনেও এই আলোর সন্ধানেই জীবন উৎসর্গ করেছেন। 

ইসলামি শিল্প ঐতিহ্য, ক্যালিগ্রাফির সঙ্গে বাঙালির ঐতিহ্যবাহী লোকায়ত ধারার এক অদ্ভুত মেলবন্ধন ঘটিয়েছেন রনি আহম্মেদ। আবার তার আগেকার কার্টুন, স্যাটায়ার আর ব্যঙ্গাত্মক চিত্রকর্মের কিছুটা রেশ এখনো রয়ে গেছে কোন কোন ছবিতে, যদিও এগুলোর অন্তর্নিহিত বার্তা একদমই হালকাভাবে নেয়ার উপায় নেই।

 রনি আহম্মেদ বলেন “  গত কয়েক বছর আমি সুফিবাদের মাধ্যমে আত্মার নির্বাণের পথ অনুসন্ধান করেছি নিরন্তর। এই পথেই আমি এক আলোকোজ্জ্বল শৈল্পিক ভাষার খোঁজ পেয়েছি। সবকিছুর মধ্যেই আমি মহান আল্লাহকে দেখি। আমাদের মহানবীর গভীর ভালোবাসার সন্ধান পেয়েছি আমি। আমি এমন এক জগৎ সৃষ্টি করতে ভালোবাসি, যা প্রতিনিয়ত পরিবর্তিত হচ্ছে, অথচ যা চিরন্তন। আমি আমার দৃষ্টিভঙ্গি, আমার স্টাইল দেখা এবং অদেখার মধ্যে বদলেছি বারবার”।



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top