ইউক্রেনের শিশুদের জন্য নোবেল পুরস্কার বিক্রি করে দিলেন রুশ সাংবাদিক


প্রকাশিত:
২১ জুন ২০২২ ১৭:১১

আপডেট:
২ জুলাই ২০২২ ১৩:৫১

রাশিয়া ও ইউক্রেনের যুদ্ধের মধ্যে নিজের নোবেল শান্তি পুরস্কার বিক্রি করে দিয়েছেন একজন রুশ সাংবাদিক। মূলত রাশিয়ার আগ্রাসনের কারণে বাস্তুচ্যুত ইউক্রেনীয় শিশুদের সহায়তার জন্য নোবেল শান্তি পুরস্কারের স্বর্ণপদক নিলামে বিক্রি করেছেন তিনি।

রাশিয়ার ওই সাংবাদিকের নাম দিমিত্রি মুরাতভ। তিনি রুশ স্বাধীন সংবাদপত্র নোভায়া গেজেটার প্রধান সম্পাদক। মঙ্গলবার (২১ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি ও রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার ইউক্রেনের যুদ্ধে বাস্তুচ্যুত শিশুদের সহায়তার জন্য নিজের নোবেল শান্তি পুরস্কারের স্বর্ণপদক ১০৩.৫ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি করেন দিমিত্রি মুরাতভ। ওই পুরো অর্থই তিনি ইউনিসেফকে দিয়েছেন ইউক্রেনকে সাহায্য করার জন্য।

এএফপি বলছে, হেরিটেজ অকশানস এর আয়োজিত নিলামে সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি ফোনে দর ঘোষণার মাধ্যমে নোবেল শান্তি পুরস্কারের স্বর্ণপদকটি কিনে নেন। ক্রেতা ওই ব্যক্তির পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

রাশিয়ায় মত প্রকাশের স্বাধীনতা রক্ষার জন্য মুরাতভকে ২০২১ সালে নোবেল শান্তি পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছিল। সেবছর মুরাতভের সঙ্গে ফিলিপাইনের সাংবাদিক মারিয়া রেসাও যৌথভাবে পুরস্কারটি পেয়েছিলেন। মূলত ‘মত প্রকাশের স্বাধীনতা রক্ষার প্রচেষ্টার জন্য’ তাদের পুরস্কার দিয়েছিল নোবেল কমিটি।

সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পর ১৯৯৩ সালে অন্য আরও বেশ কয়েকজন সাংবাদিকের সঙ্গে নোভায়া গেজেটা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন দিমিত্রি মুরাতভ। তবে ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন শুরুর পর চলতি বছরের মার্চ মাসে এই পত্রিকার কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

সংবাদমাধ্যম বলছে, নোভায়া গেজেটার সম্পাদক মুরাতভ প্রথম থেকেই ইউক্রেন যুদ্ধের তীব্র বিরোধিতা করছেন। পুরস্কার বিক্রির পর মুরাতভের দেওয়া অর্থ ইউক্রেনের ঘর-বাড়ি হারানো শিশুদের জন্য ব্যয় করা হবে বলে জানিয়েছে ইউনিসেফ।



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top