রাশিয়া থেকে ছাড় মূল্যে কয়লা পাচ্ছে ভারত


প্রকাশিত:
১৯ জুন ২০২২ ০৯:৫৮

আপডেট:
১৯ জুন ২০২২ ১০:১৩

ছাড় মূল্যে তেল পাওয়ার পর এবার রাশিয়া থেকে ছাড় মূল্যে কয়লা পাচ্ছে ভারত। যে কারণে সম্প্রতি দেশটি রাশিয়ার কয়লা কেনা কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুইটি ট্রেডার কোম্পানির বরাত দিয়ে এবং হাতে পাওয়া সরকারি ডেটা পর্যালোচনা করে বার্তা সংস্থা রয়টার্স শনিবার এ খবর প্রকাশ করেছে। খবরে বলা হয়, রাশিয়া থেকে ভারত ৩০ শতাংশ ছাড় মূল্যে কয়লা কিনছে।

ইউক্রেইনে আগ্রাসণের জেরে রাশিয়াকে বেকায়দায় ফেলতে দেশটির অর্থনীতির উপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্রসহ তাদের পশ্চিমা মিত্ররা। কিন্তু ওই নিষেধাজ্ঞা আনুসরণ করতে মোটেই আগ্রহী নয় ভারত। বরং দেশটি নানা সুবিধার সুযোগ নিয়ে রাশিয়া থেকে পণ্য ক্রয় ও আমদানি বাড়িয়ে দিয়েছে।

ইউক্রেইন যুদ্ধের কারণে জাতিসংঘে রাশিয়াকে নিন্দা জানাতে যে প্রস্তাব তোলা হয়েছিল তাতে ভোটদান থেকে বিরত ছিল ভারত। তবে ভারত এ যুদ্ধের অবসান ঘটানোর আহ্বান জানিয়েছে। রাশিয়া এবং ভারত রাজনৈতিকভাবে দীর্ঘদিনের মিত্র। দুই দেশের মধ্যে একাধিক দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা চু্ক্তিও রয়েছে।

পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞা স্বত্তেও রাশিয়ার পণ্য ক্রয় অব্যাহত রাখার ব্যাখ্যায় দিল্লি বলেছে, পণ্যের যোগানে বৈচিত্র রাখার অংশ হিসেবে তারা রাশিয়ার পণ্য ক্রয় করছে। তাদের যুক্তি, যদি তারা হঠাৎ করে রাশিয়ার পণ্য ক্রয় বন্ধ করে দেয় তবে বিশ্ববাজারে পণ্যের দাম আরো বাড়বে এবং ভারতীয় ভোক্তারা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।

এ বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বলেছেন, রাশিয়া থেকে জ্বালানি পণ্য আমদানিতে ভারতের উপর কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। কিন্তু তারা চান না ভারত সেই পণ্য ক্রয় ‘দ্রুত বাড়িয়ে ফেলুক’।

ইউরোপের ট্রেডাররাও অবশ্য এখনো মস্কো থেকে পণ্য আমদানি বন্ধ করেনি। কিন্তু ভারত পণ্য আমদানি অনেক বাড়িয়েছে, এমনকি তেলের রেকর্ড দামের কারণে পরিবহন খরচ বেড়ে যাওয়ার পরও তারা বিপুল পরিমাণ পণ্য রাশিয়া থেকে আমদানি করছে।

রয়টার্সের হাতে পড়া ভারতের কয়লা কেনার কিছু নথিপত্র অনুযায়ী, গত বুধবার পর্যন্ত ভারত ২০ দিনে রাশিয়া থেকে কয়লা এবং কয়লাজাত পণ্য ক্রয় গত বছর এই সময়ে তুলনায় ছয়গুণ বাড়িয়েছে। অর্থের হিসাবে যা ৩৩ কোটি ১০ লাখ মার্কিন ডলারের বেশি।

ভারত রাশিয়া থেকে তেল কেনাও অনেক বাড়িয়ে দিয়েছে। গত বুধবার পর্যন্ত ২০ দিনে দেশটি গত বছরের তুলনায় ৩১ গুণ বেশি তেল কিনেছে। অর্থের হিসাবে ২০২ কোটি ২০ লাখ মার্কিন ডলারের বেশি।

এ বিষয়ে জানতে শনিবার রয়টার্স থেকে ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করা হয়েছিল। কিন্তু তারা কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা বলেন, রাশিয়ার ব্যবসায়ীরা পণ্যের মূল্য পরিশোধের বিষয়ে অনেক উদার হয়েছে। সেইসঙ্গে তারা ভারতীয় রুপি এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের মুদ্রা দিরহামে মূল্য পরিশোধের সুযোগ দিয়েছে। তারা যে ছাড় দিচ্ছে সেটাও খুবই আকর্ষণীয়। ফলে রাশিয়া থেকে কয়লা ক্রয় বহুগুণ বাড়িয়ে দেওয়ার এই ধারা অব্যাহত থাকবে।

 



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top